১৪ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

February 26, 2020, 2:32 am

নেসকোর বিদ্যুত লাইনের মিটার টেম্পারিং; চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠিত; মিটার ও তার জব্দ

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড় সদর উপজেলার জগদল বাজারে একটি রাইস মিলে মিটার টেম্পারিং ও জাল-জালিয়াতি করে বিদ্যূত সংযোগ স্থাপন এবং লাখ লাখ টাকার বিদ্যূত চুরির ঘটনা পত্রিকায় প্রকাশ হওয়ার পর তদন্ত কমিটি গঠন। জব্দ করা হয়েছে মিটার-তার।
জানা যায়, নদার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো) এর অধিন সদর উপজেলার জগদল বাজারে দর্ীঘ প্রায় ৫ বছর ধরে মিস্ত্রী হিসেবে পরিচিত আব্দুস ছাত্তার তার রাইস মিলে দীর্ঘদিন ধরে মিটার টেম্পারিং করে মিল চালিয়ে আসছিল।
এছাড়া ইজিবাইক ও চাজার্র রিকসায় চার্জ দিয়ে অবৈধ ভাবে টাকা উপার্জন করে ছাত্তার। এরপর বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ, নেসকো পঞ্চগড় এর উপ-সহকারি আলেফুল ইসলাম ছাত্তারের নিকট গোপনে দফারফা করে মোটা অর্থ হাতিয়ে নিয়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয় এবং টেম্পারিং করা মিটার সংযোগ বিছিন্ন করে দেয় বলে স্থানিয় সূত্র জানায়।
এ নিয়ে একাধিক গন্যমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে নেসকোর দিনাজপুর তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ১৪ জানুয়ারি ঘটনাস্থল জগদলের ওই মিলটি পরির্দশন করেন নেসকোর দিনাজপুরের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম । তার সাথে ছিলেন নেসকোর ঠাকুরগাওঁ নিবার্হী প্রকৌশলী মো. গোলাম সারোয়ার ও নেসকো দিনাজপুরের আঞ্চলিক একাউন্স অফিসের উপ-পরিচালক মো.রনি আলম এবং নেসকো পঞ্চগড় এর নিবার্হী প্রকৌশলী মো. আতিকুর রহমান।
এ ঘটনার পর নেসকোর দিনাজপুরের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম কে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্যরা হলেন; সহকারি প্রকৌশলী রাজশাহী’ নেসকো পঞ্চগড় এর ভারপ্রাপ্ত নিবার্হী প্রকৌশলী মো. আতিকুর রহমান ও উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. রাজু আহমেদ।এর আগে ১৩ জানুয়ারি উপ-সহকারি প্রকৌশলী মো. আলেফুল ইসলাম কে জগদল এলাকা থেকে পঞ্চগড়- টু বিদ্যূত ফিডারে বদলী করা হয়।
এদিকে চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি শুক্ররবার (১৭জানুয়ারি) আবারো জগদলে আসেন। সরজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে ছাত্তারের মিলের সংযোগ বিছিন্ন হওয়া টেম্পারিং মিটারটি চেক করে এবং টেম্পারিং করার বিষয়টির সত্যতা পান। এসময় বিদ্যুত লাইনের মূল লাইনের তারে ও ছিদ্র পান।
এরপর কমিটি ওই মিটার ও লাইনের তার জব্দ করেন। স্থানিয় সূত্রগুলি জানায় ‘এসময় তদন্ত কমিটি হতবাক হয়ে যায়’। ‘এ সময় ছাত্তারের নিকট কমিটি জানতে চায় এ কাজ কে করেছে’। তখন ছাত্তার নিরুত্তর থাকে’। তদন্ত কমিটি মিটারটি সহ তার জব্দ করেন।এ বিষয়ে জানতে নেসকো নিবার্হী প্রকৌশলী পঞ্চগড়’এর মুঠো ফোনে একাধিকবার ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর