১১ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

March 25, 2020, 7:39 am

স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ও স্মার্ট টেলিভিশন দেশে তৈরি করে রপ্তানি করা হবে – প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘দীর্ঘ ৬৮ বছর পিছিয়ে থাকা বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীদের আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য ৮৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে দ্বিতল ডিজিটাল সার্ভিস ইমপ্লয়েন্টমেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টার মুজিববর্ষে উপহার দেয়া হলো।’
শনিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) পঞ্চগড় সদর উপজেলার বিলুপ্ত গাড়াতি ছিটমহলের মফিজার রহমান ডিগ্রী কলেজ মাঠে নির্মাণাধীন ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।
পলক বলেন, ‘মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ৪০ হাজার ৫০০ জনকে আইসিটি লার্নিংয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে।’
তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে প্রকল্প দিয়েছেন তার সুযোগ্য সন্তান সজীব ওযাজেদ জয়ের পরামর্শে ইতোমধ্যে আমরা দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ তরুণ-তরুণী কর্মসংস্থান পেয়েছে। ইতোমধ্যে ৬ লাখ ফ্রিলান্সার কাজ করছে। সেই সঙ্গে প্রায় ২ লাখ সফটওয়্যার টেকনোলজিতেও কাজ করছে। লক্ষাধিক ছেলে-মেয়ে কল সার্ভিসে কাজ করছেন। ৫০ হাজারও বেশি ছেলে-মেয়ে ই-কমার্সে কাজও করছেন।’
তিনি আরও বলেন, স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ও স্মার্ট টেলিভিশন এখন দেশেই তৈরি করে রপ্তানির উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। আগামী ১ মার্চ বাংলাদেশে তৈরি ওয়ালটনের ২৬ হাজার স্মার্ট ফোন প্রযুক্তি নির্ভর আমেরিকায় রপ্তানি করা হবে। ওয়ালটন ১৮ লাখ ফ্রিজ উৎপাদন করে দেশে ও বিদেশে রপ্তানী করছে।
মন্ত্রী বলেন, গত ৩ বছরে বাংলাদেশে ১১ টি মেনুফ্যাকচারিং এবং এসেম্বলিং প্লান্ট স্থাপিত হয়েছে। প্রতি বছর ৪ কোটি মোবাইল, ১০ লাখ ল্যাপটপ আমদানি করে, লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রজেক্টের মাধ্যমে মুজিব বর্ষে ৪০ হাজার শিক্ষিত বেকারকে প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ করে গড়ে তোলা হবে। তারা যেন প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘরে বসেই নিজের আত্মকর্মসংস্থানের সুযোগ পায়।
যুবকদের এগিয়ে যাবার ক্ষেত্রে তিনটি বাঁধার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন আমাদের সামনে তিনটি বাধা ও শত্রু রয়েছে। এই তিনটি বাধা হচ্ছে মাদক, জঙ্গীবাদ ও দুর্নীতি। এই তিনটি বাধা বা শত্রুকে অতিক্রম করে শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হবে। এ সময় মন্ত্রী প্রযুক্তির ভাল দিক ব্যবহার করে তরুণদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, ‘২০০৮ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার যে প্রকল্প দিয়েছেন তার সুযোগ্য সন্তান সজীব ওযাজেদ জয়ের পরামর্শে ইতোমধ্যে আমরা দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছি। আমাদের আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ তরুণ-তরুণী কর্মসংস্থান পেয়েছে। ইতোমধ্যে ৬ লাখ ফ্রিলান্সার কাজ করছে। সেই সঙ্গে প্রায় ২ লাখ সফটওয়্যার টেকনোলজিতেও কাজ করছে। লক্ষাধিক ছেলে-মেয়ে কল সার্ভিসে কাজ করছেন। ৫০ হাজারও বেশি ছেলে-মেয়ে ই-কমার্সে কাজও করছেন।’
মন্ত্রী আরও বলেন, শিক্ষিত তরুণ বেকারদের আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে দেশের ৬৪টি জেলায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে ৮টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার নির্মাণের কাজ চলছে ও ১১টি সেন্টার নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন। এতে করে লাখ লাখ উদ্যোক্তা সৃষ্টির মধ্য দিয়ে দেশে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।
নির্মাণাধীন ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মজাহারুল হক প্রধান, জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত স¤্রাট, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন। পরে মন্ত্রী জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার হাইটেক পার্কের প্রস্তাবিত স্থান পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেছেন, শিক্ষিত তরুণ বেকারদের আত্মকর্মসংস্থানের লক্ষ্যে দেশের ৬৪টি জেলায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে ৮টি শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ইনকুবেশন সেন্টার নির্মাণের কাজ চলছে ও ১১টি সেন্টার নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন। এতে করে লাখ লাখ উদ্যোক্তা সৃষ্টির মধ্য দিয়ে দেশে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।
এর আগে সকালে তিনি পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও ও নীলফামারী জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি), শেখ রাসেল জিটিটাল ল্যাব, ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাবের মনিটরিং কর্মকর্তা, আইসিটি ও কম্পিউটার শিক্ষক, ইউডিসি এবং ইনফো সরকার প্রকল্প ফেইস-৩ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সভায় উপস্থিত ছিলেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর