১৯শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

April 2, 2020, 9:49 am

করোনার জন্য ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ভারতীয় ভিসা বন্ধ, বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশনেও ভারত প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে নোভেল করোনা ভাইরাস। ইতিমধ্যে করোনাভাইরাস থাবায় আক্রান্ত হয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। বাদ যায়নি বাংলাদেশও। প্রাণঘাতি এ ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে সমস্ত ট্যুরিস্ট ভিসা বাতিল করেছে দেশটি। আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ভারত কোন নতুন ভিসা না দেয়ার ঘোষণায় দেশের সর্ব উত্তরের একমাত্র চতুদের্শী (ভারত, নেপাল, ভুটান ও বাংলাদেশ) বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে পর্যটকদের ভারত যাওয়া বন্ধ হচ্ছে।
শুক্রবার (১৩ মার্চ) বিকেল পাঁচটার পর থেকে আর কোনো বাংলাদেশি পাসপোর্টধারী ভারতে যেতে পারবেন না। আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে বলে জানা গেছে। তবে বাংলাদেশে অবস্থানরত ভারতীয় নাগরিকরা ও ভারতে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকরা এই সময়ের মধ্যে এই স্থলবন্দর দিয়ে নিজ নিজ দেশে ফিরতে পারবেন। এদিকে দেশে উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা করোনা ভাইরাসের প্রভাবে এ স্থলবন্দরে আমদানি-রপ্তানির বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে কীনা জানা যায়নি।
বাংলাবান্ধা ইমিগ্রেশন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোকছেদ আলী জানান, এখন পর্যন্ত এ বন্দর দিয়ে ভিসাধারী যাত্রী পারাপার বন্ধের জন্য সরকারিভাবে কোনো নোটিশ পাইনি। আমরা বিকেল ৫টা পর্যন্ত যাত্রীদের পার করাবো। এদিকে যাত্রী পারাপার বন্ধে সরকারি সিদ্ধান্ত পেলে আমরা এ বন্দর দিয়ে সাময়িকভাবে যাত্রী পার বন্ধ করে দিবো। তবে বন্ধের পর থেকে বাংলাদেশি কোনো যাত্রী ভারতে প্রবেশ করতে পারবে না। যদি কোনো বাংলাদেশি যাত্রী ভারতে থেকে থাকে তবে তারা এই সময়ের মধ্যে দেশে ফিরতে পারবেন বলে তিনি জানান।
বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মেহেদী হাসান খান বাবলা জানান, শুনেছি ভারতীয় কর্তৃপক্ষ যাত্রী পারাপার বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটি যদি হয়ে থাকে তাহলে তা আমদানি-রপ্তানির ক্ষেত্রে প্রভাব পড়বে। যদিও এই বন্দর দিয়ে খাদ্য-শস্য আমদানি হয় না। মুলত পাথর আমদানি করা হয়, তবুও প্রভাব পড়বে। এমনিতেই করোনার প্রভাবের কারণে এ বন্দর দিয়ে যাত্রী পারাপার কমে গেছে। যদি বন্দর বন্ধ হয় তাহলে ব্যবসায় প্রভাব পড়ার পাশাপাশি সরকার অনেকটা রাজস্ব হারাবে বলে মনে করছি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর