২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

July 11, 2020, 2:52 pm

কুড়িগ্রামে নৌকাডুবে কনের বাবাসহ নিখোঁজ ৪

জেলা প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুরে নববিবাহিত মেয়ের শ্বশুর বাড়ি থেকে বউভাতের দাওয়াত খেয়ে বাড়ি ফেরা হলো না বাবা নুর ইসলাম(৫০)এর। নৌকা ডুবির এ ঘটনায় কনের বাবাসহ আরো ৩ ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার বিকেলে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ধরলা নদীতে। মর্মান্তিক এ নৌকা ডুবির ঘটনায় শত শত মানুষ নদী পাড়ে ভিড় জমাতে থাকে। এসময় ওই এলাকায় শত শত মানুষের কান্নায় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের যমুনা রায়পাড়া গ্রামের নুর ইসলামের কন্যা নাজমা খাতুন(১৮) এর সাথে পার্শ্ববর্তী বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ধরলা নদী বিচ্ছিন্ন চর কলাকাটা নামানির চর এলাকার আব্দুল হাই এর পুত্র আলমগীর হোসেন(২২)এর সাথে ঈদের পরদিন বিয়ে হয়।
বুধবার দুপুরে মেয়ের বউভাতের দাওয়াত খেতে মেয়ের বাবা নুর ইসলাম প্রায় ৫০ লোক জন লোক নিয়ে মেয়ের শ্বশুর বাড়ি যান। দাওয়াত খেয়ে নৌকা যোগে বাড়ির ফেরার সময় বিকেল ৪টার দিকে ধরলা নদীতে ঝড়-বৃষ্টি শুরু হলে লোকজন পলিথিন মাথার উপর দেয়ার সময় নৌকাটি ডুবে যায়। এসময় নৌকায় থাকা অন্য লোকজন সাঁতার দিয়ে কিনারায় আসলেও কনের বাবা নুর ইসলাম(৫০)সহ ৪ ব্যক্তি নিখোঁজ হন।
ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী উলিপুর থানার এএসআই মনিরুজ্জামান জানান, কনের বাবাসহ নিখোঁজ অন্যরা হলেন যমুনা রায় পাড়া গ্রামের মৃত কেরামত উল্ল্যার পুত্র নুর ইসলাম (৫২), একই এলাকার মৃত সোনাউল্লাহর পুত্র কামরুজ্জামান (৫৫) ও তৈয়ব আলীর স্ত্রী আমেনা বেগম(৫০)।
খবর পেয়ে উলিপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গেলেও ডুবুরী না থাকায় উদ্ধার কাজ শুরু করতে পারেনি বলে বুড়াবুড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকার জানান। এদিকে স্থানীয় লোকজন রাত সাড়ে ১০টা অনেক খোঁজাখুজি করেও তাদের উদ্ধার করতে পারেনি।
উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। স্থানীয়ভাবে খোঁজাখুজি করেও রাত সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত নিখোঁজ ৪ ব্যক্তিকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলেও জানান তিনি।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর