৩রা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

October 18, 2020, 8:43 am

ফুলবাড়ীতে সেতুর অভাবে ভোগান্তি হাজারও মানুষের

ফুলবাড়ী(কুড়িগ্রাম)প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের চর বড়ভিটা গ্রামের ওয়াপদা বাজার সংলগ্ন  বিলের উপর নির্মান করা সেতুটি ভেঙ্গে পানিতে তলিয়ে গেছে। ভেঙ্গে যাওয়ার দীর্ঘদিনেও সেতুটি  পুণঃ নির্মান না করায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন আশপাশের কয়েকটি গ্রামের হাজারও মানুষ।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে ২০১৭ সালের ভয়াবহ বন্যায় সেতুর দুপাশের সংযোগ সড়ক ভেঙ্গে বিছিন্ন হয় । বাঁশের সেতু নির্মান করে মূল সেতুর সাথে দুপাশের সড়কের সংযোগ দিয়ে চলাচলের ব্যবস্থা করা হয় । পরের বছর বন্যায় পানির স্রোতের তোড়ে সেতুর নিচের মাটি সরে গিয় সেতুটি পুরোটাই পানিতে ডুবে যায়। শুরু হয় বিলপাড়াপারে ভোগান্তি। ভোগান্তিতে পড়া ওই এলাকার বাসিন্দা রিয়াজুল ইসলাম(৩৯) জব্বার (৫৫) মফিজুল (৩৮) কাশেম আলী (৬৭) বলেন, সেতুটি ভেঙ্গে যাওয়ার পরে ড্রামের তৈরী ভেলা দিয়ে আমরা প্রথমে পারাপার হতাম। পরে জেলা পরিষদের আর্থিক সহায়তায় বাঁশের সাঁকো নির্মান করা হয়।  চর বড়লই নিম্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চর বড়ভিটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, মধ্য চর বড়ভিটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মাঝিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এখানে অবস্থিত । বিদ্যালয় গুলির কোমলমতি শিক্ষার্থীরা ভয় ও ঝুকি নিয়ে সেতুটি পাড়াপারে করে আসছে দীর্ঘদিন হতে। অনেক শিশু তো ভয়ে সেতু পাড় হয়ে স্কুলে যেতেই চায় না। তাছাড়া অতিরিক্ত লোক চলাচলে ড্রামের উপর বাঁশের চটি দিয়ে নির্মাণ  করা সাকোটি ইতি মধ্য নড়বড়ে হয়ে গেছে।  অটো রিক্সা, ও মোটর সাইকেল সহ অনেকে গভীর পানিতে পড়েছেন। চরের জমিতে উৎপাদিত কৃষিপণ্য আনা নেয়ায় বিপাকে পড়েছেন কৃষক। গুরুতর অসুস্থ রোগীকে হাসপাতালে নিতে স্বজনদের বিড়ঁম্বনায় পড়তে হয়। কাগজীপাড়া মসজিদের ঈমাম ও চর বড়ভিটা গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল মজিদ মিয়া বলেন ২০১৭ সালের বন্যার পর থেকেই আমরা দুঃখ দুর্দশায় চলাচল করলেও দীর্ঘদিনে সেতুটি পুণঃ নির্মাণে কোন ব্যাবস্থা নেওয়া হয়নি।
এ ব্যাপারে বড়ভিটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ খয়বর আলী মিয়া বলেন, তলিয়ে যাওয়া সেতুটির চেয়ে আরো বড় সেতু  নির্মাণের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহ করে তা প্রকল্পাকারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠানো হয়েছে।  প্রকল্পটি অনুমোদন হলে সেতুটি পুণঃ নির্মানে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর