,

যার পরামর্শে ইতালিতে বিরাট-আনুশকার বিয়ে

বর্তমানে ভারতীয় শোবিজ অঙ্গনের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ক্রিকেটার বিরাট কোহলি ও অভিনেত্রী আনুশকা শর্মার বিয়ে। গত কয়েকদিন ধরে এ জুটির বিয়ের গুঞ্জন শোনা গেলেও বিষয়টি গোপন রেখেছিলেন তারা।

তবে ১১ ডিসেম্বর বিয়ের পর ভক্তদের সুখবরটি জানান দুজন। কিন্তু বিয়ে নিয়ে লুকোচুরি কেন খেললেন বিরাট-আনুশকা? আর দেশ ছেড়ে ইতালিতেই কেন বিয়ে করলেন এ জুটি? এমন প্রশ্ন অনেকের মনেই ঘুরপাক খাচ্ছে।

তাদের উত্তর হলো, যশরাজ ফিল্মসের কর্ণধার আদিত্য চোপড়ার পরামর্শেই এ কাজ করেছেন তারা। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে। এ প্রসঙ্গে একটি সূত্র সংবাদমাধ্যমে বলেন, বিরাট-আনুশকার ইতালিতে বিয়ের বুদ্ধিটা আদির (আদিত্য চোপড়া) ছিল। তিনি তাদের সতর্ক করেছিলেন যে, দেশে বিয়ে করলে পাপারাজ্জি ও অতিথিদের ভিড়ে বিশেষ দিনটি তামাশায় পরিণত হতে পারে।

২০০৮ সালে যশ রাজ ফিল্মসের রব নে বানাদি জোড়ি সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন আনুশকা শর্মা। এ ছাড়া আদিত্য চোপড়াকে মেন্টর মনে করেন তিনি। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে এ অভিনেত্রী জানিয়েছেন, আদিত্যর স্ত্রী রানী মুখার্জিকে তিনি নিজের আদর্শ মনে করেন।

তাই পরামর্শটি বেশ গুরুত্ব দিয়েছেন আনুশকা। অনেকটা ছোট পরিসরেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন বিরাট-আনুশকা।

এমনকি বিরাটের সতীর্থ খেলোয়াড় এবং আনুশকার ইন্ডাস্ট্রির উল্লেখযোগ্য কোনো বন্ধু ছিলেন না অনুষ্ঠানে। তবে আদিত্য-রানীকে নিমন্ত্রণ করেছিলেন এ জুটি। যশ রাজ ফিল্মসের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক সূত্র বলেন, তারা (আদিত্য-রানী) বিয়েতে উপস্থিত হতে চেয়েছিলেন কিন্তু আদিত্য এখন ঠগস অব হিন্দুস্তান সিনেমা নিয়ে ব্যস্ত থাকায় যেতে পারেননি। bhorer kagoj

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর