,

কাপাসিয়ায় ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করেন শিক্ষক

সমীর বনিক,প্রতিনিধি,কাপাসিয়া(গাজীপুর)
গাজীপুরে কাপাসিয়ায় গতকাল বুধবার ৫ম শ্রেণীর (শ্রাবনী ১১) এক ছাত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর মা ফেরদৌসী বাদি হয়ে কাপাসিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম আনিছ পারভেজ ওরফে ইদ্রিস। সে কাপাসিয়ার রায়েদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক ও রায়েদ মধ্যপাড়ার শামসুদ্দিনের ছেলে বলে জানা গেছে। যৌন হরানীর শিকার ওই ছাত্রী ইকুরিয়া এলাকার শামসুল হকের কন্যা।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, রায়েদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ওই ছাত্রী গতকাল সকাল ৮টার দিকে কোচিং করতে বিদ্যালয়ে যায়। ওইসময় তার সহপাঠি কয়েকজন শিক্ষার্থীও সাথে ছিল। এ সময় অভিযুক্ত ওই শিক্ষক কৌশলে ছাত্রীকে বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ডেকে নিয়ে বিভিন্ন লোভ দেখিয়ে ধর্ষনের চেষ্ঠা করে। এ সময় ওই ছাত্রীর চিৎকারে আশপাশের অন্যান্য ছাত্র-ছাত্রী আসলে অভিযুক্ত শিক্ষক পালিয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হলে এলাকাবাসি থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানা নিয়ে আসে। পরে ছাত্রীর মা বাদি হয়ে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে থানায় একটি ধর্ষনের চেষ্টার মামলা করা হয়েছে।
কাপাসিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, যৌন হয়রানীর খবর পেয়ে সাথে সাথে ফোর্স পাঠিয়েছি। ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর