,

তেতুঁলিয়ায় সন্ত্রাসী কায়দায় অসহায় প্রতিবন্ধির জমির পাথর তুলে নিয়েছে দুই শিক্ষক সহ তার লোকজন ন্যায় বিচারের আশায় আদালতে মামলা দায়ের

পঞ্চগড় প্রতিনিধি॥ পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া উপজেলার শালবাহান ইউনিয়নের মৃত ইসমাইল হকের পূত্র মোঃ আজিজার রহমান(৫০) একজন শারীরিক প্রতিবন্ধি। তার তফশিল বর্নিত জমির পাথর উত্তোলন করায় বিজ্ঞ আমলী আদালত-৪ তেতুঁলিয়ায় একটি মামলা করেন।
মামলার বিবরনে জানা গেছে, তেতুঁলিয়া উপজেলার বালাবাড়ী মৌজার এস,এ খতিয়ান নং-৬৮ খারিজ খতিয়ান নং-২০৫ এম,এ ৬৮৫ দাগের ২৫ শতক জমির প্রায় বিপুল পরিমান পাথর উত্তোলন করেছে মর্মে শারীরীক প্রতিবন্ধি মোঃ আজিজার রহমান বিজ্ঞ আমল আদালত-৪ তেতুঁলিয়ায় একটি মামলাটি করেন।
মামলার আসামী হলেন, মোঃ হকিকুল ইসলাম(৪৫) মোঃ আমিরুল ইসলাম(৪০) মোঃ আবজাল(৩৫) সর্ব পিতা সমে আলী এবং আঃ লতিফ (৫০) মোঃ লুৎফর (৪৫) ও মোঃ রফিকুল (৪২) সর্ব পিতা- আসাব উদ্দীন ও মোঃ ইব্রাহিম পিতা- ভক্কর সহ অপরিচিত আরো ১০০ জনকে আসামী করা হয় এই মামলায়। জানা যায়, মামলার মূল আসামী মোঃ হকিকুল ইসলাম(৪৫) তেতুঁলিয়া উপজেলার বালাবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও মোঃ আমিরুল ইসলাম(৪০) শিলাইকুড়ি দাখিল মাদ্রাসার সহকরীী শিক্ষক।
ওই মামলার বিবরনে বলা হয়েছে, গত ৪ এপ্রিল/২০১৮বাদী মোঃ আজিজার রহমানের তফশিল বর্নিত জমিতে ওই সব আসামীগন জমি হতে ড্রেজার মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলন করে। যারটাকার পরিমান ২ লাখ নিরানব্বই টাকা। বাদী মোঃ আজিজার রহমানের মামলা বিবরনে প্রকাশ তিনি ওই জমি নিলাম ও ওয়ারিশ সূত্রে মালিক প্রাপ্ত হয়ে ভোগ দখল করে আসছেন এবং নিজ নামে খারিজ খতিয়ান খুলে সরকারকে খাজনাদি প্রদান পরিশোধ করে শান্তিপূর্ন ভাবে ভোগদখল করে আসছেন। প্রতিবি মোঃ আজিজার রহমান বিভিন্ন লোকের মাধ্যমে কাজকর্ম করে জীবিকা নির্বাহ করেন।
ওই ভোগ দখলীয় জমিতে প্রচুর পরিমান নুড়ী পাথরের সন্ধান পাওয়ায় মোঃ আজিজার রহমান মোঃ নুরুল ইসলাম ,মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ রুহুল আমিন ও মোঃ আব্দুল বারেক গংদের নিকট ৪৩ লাখ ৮৪ হাজার টাকা টাকা স্থির করে পাথর উত্তোলন করার জন্য তিনশত টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে চুক্তিপত্র করে যার তারিখ-৩১/১২/১৭ ইং। এই চুক্তিপত্রের খবর শুনে ২১/০৩/১৮ ইং আসামীগন সকাল ১০০টার দিকে বাদীর জমিতে গিয়ে বে-দখলের হুমকি দিলে বাদী প্রতিবন্ধি মোঃ আজিজার রহমান ২৫/০৩/১৮ ইং এম,আর ৬৮/১৮ নং মামলা ১৪৪ ধারা মতে আতিরিক্ত বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আনায়ন করেন।
পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালতের আদেশক্রমে থানা কর্তৃপক্ষ আসামীগনকে স্থিতিশীল অবস্থা বজায় রাখার জন্য েিনদৃশ প্রদান করলে উক্ত আদেশ অমান্য করে গত ২৯/০৩/১৮ ইং বাদীর ভোগ দখলীয় জমিতে অনাধিকার প্রবেশ করলে স্বাক্ষীগনের বাধা নিষেধের ফলে আসামীগন ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।
তারপরে গবীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়ে এক পর্যায়ে াবদীর শারীরীক অসুস্থতার সুযোগে অসামীগন
ছোঁড়া ,বল্লম, লাঠি ইত্যাদি নিয়ে আসামীগন ঘটনার দিন ওই তফশিল বর্নিত জমির পাথর উত্তোলন করেন।আসামীগন এসময় পাথর গুলো ১৫টি মহেন্দ্র ট্রলিতে নিয়ে বিক্রির উদ্দেশ্যে তেতুঁলিয়ায় নিয়ে যাওয়ার সময় মামলার স্বাক্ষী ১/৩ এর পড়নের কাপড় চোপড় ধরে বিবস্ত্র করে তাদের শ্লীলতাহানী করে।এক পর্যায়ে মামলার ১ নং আসামী মোঃ হকিকুল ইসলাম ধারালো অস্ত্র দ্বারা বাদী ও স্বাক্ষীগনকে জীবনে মেরে ফেলার জন্য তাড়া করলে তাদের চিল্লাচিল্লিতে আসামীগন সরে পড়ে।
বিষয়টি নিয়ে আপোষ মীমাংসার অজুহাতে আসামীগ সময়ক্ষেপন করে। পরে প্রতিবন্ধি ন্যায়বিচারের আশায় বিজ্ঞ আদালতের সরাপন্ন হন।বর্তমান মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে।
বর্তমান সরকার অসহায় প্রতিবন্ধি মোঃ আজিজার রহমান কে প্রতিবন্ধি ভাতা প্রদান করছেন। যার ব্যাক হিসাব নং-প্রতি:৬৭ উপজেলা সমাজসেবা তেতুঁলিয়া।#

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর