,

সাদা পোশাকে ‘রঙিন’ মমিনুল

আন্তর্জাতিক ওয়ানডে থেকে উপেক্ষার জবাবটা দীর্ঘ পরিসরের বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগেই (বিসিএল) দিলেন মমিনুল হক। প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরির অপেক্ষায় থাকা ইসলামী ব্যাংক পূর্বাঞ্চলের এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান আসরের প্রথম দিনটি শেষ করেছেন ১৬৯ রানে অপরাজিত থেকে। স্ট্রাইক রেট ৮২ তো ওয়ানডে মেজাজেরই। তাতে বিকেএসপির এই ম্যাচে ৫ উইকেটে ৩৪০ রান তুলে প্রাইম ব্যাংক দক্ষিণাঞ্চলের দুর্ভাবনার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে মমিনুলের দল। ওদিকে সিলেটে বিসিবি উত্তরাঞ্চলের পেস বোলারদের দাপটে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৮৮ রানে গুটিয়ে গেছে ওয়ালটন মধ্যাঞ্চল। তবে এই ইনিংসের চুম্বক অংশ, উত্তরাঞ্চলের উইকেটরক্ষক ধীমান ঘোষের ছয় ক্যাচ। তবে পেসারদের এমন দাপটের ম্যাচেও বিবর্ণ তাসকিন আহমেদ, ৭ উইকেটে ২৯ রান গুনে গত দিনটা উইকেটহীনই কেটেছে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া এই পেসারের। তাতে বিনা উইকেটে ৯৩ রান তুলে ফেলা বিসিবি উত্তরাঞ্চল বড় লিডের সম্ভাবনা নিয়ে আজ আবার ব্যাটিংয়ে নামছে।

বিকেএসপিতে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা পূর্বাঞ্চলের ইনিংসে প্রথম আঘাত হেনেছেন এক মিডিয়াম পেসার, সৌম্য সরকার। তাঁর খণ্ডকালীন পেস বোলিংয়ে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া লিটন দাসের স্টাম্প ভাঙাটাই এদিন দক্ষিণাঞ্চলের জন্য সবচেয়ে বড় উদ্‌যাপন। এরপর যে একজন মমিনুলকে কেন্দ্র করে শক্ত ভিত গড়েছে পূর্বাঞ্চল। অন্য প্রান্তে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট পড়লেও ব্যাটিংয়ে গিয়ার বদলাননি তিনি। তাতে জাকির হোসেনের আগে ক্রিজে আসা ব্যাটসম্যানরা লম্বা ইনিংস খেলতে না পারলেও ভাটা পড়েনি পূর্বাঞ্চলের রান তোলার গতিতে। তরুণ জাকির হোসেনকে (৪৭*) সঙ্গী করে এরই মধ্যে ১১৭ রানের জুটি গড়ে ফেলা মমিনুলের সামনে একজোড়া সুযোগ—ডাবল সেঞ্চুরির পর ম্যাচ থেকে দক্ষিণাঞ্চলকে ছিটকে দেওয়ার!

ওদিকে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা মধ্যাঞ্চলকে শুরুতেই ব্যাটফুটে ঠেলে দিয়েছেন উত্তরাঞ্চলের দুই পেসার শফিউল ইসলাম ও শুভাশীষ রায়। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন তাঁরা। মাঝে আরিফুলের চার শিকারে মাথা তুলেই দাঁড়াতে পারেনি মধ্যাঞ্চল। নাজমুল হোসেন (৪২*) ও মিজানুর রহমানের (৪৯*) ব্যাটে এখন ম্যাচের লাগাম মুঠোয় ভরার অপেক্ষায় উত্তরাঞ্চল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর