খুলনার বাজারে সবজির মেলা, আলুর দাম বেশি

শীত কাল এলেই দেখা মেলে হরেক রকম সবজির। এসময় বাজারগুলোতে সবজির ভরপুর আমদানি থাকায় দাম থাকে ক্রেতাদের নাগালে। তবে বাজারে নতুন আলু পাওয়া গেলেও এর দাম নিয়ে রয়েছে ক্রেতাদের অভিযোগ। স্বস্তি ফেরেনি নতুন কিংবা পুরোনো আলুর দামে। একই সঙ্গে যোগ হয়েছে বাজারে আসা পেঁয়াজের কালি।
শনিবার (২৫ নভেম্বর) খুলনার টুটপাড়া জোড়াকল, নিউমার্কেট, ময়লাপোতা সন্ধ্যা এবং মিস্ত্রিপাড়া বাজারঘুরে দেখা গেছে নতুন আলু বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকা আর পেঁয়াজের কালি বিক্রি হচ্ছে ২৮০-৩০০ টাকা কেজি দরে।
নগরীর নিউমার্কেট কাঁচা বাজারের সবজি বিক্রেতা ইলিয়াস ইজারাদার বলেন, কয়েকদিন হলো বাজারে এসেছে নতুন আলু আর পেঁয়াজের কালি। তাই দাম একটু বেশি। আশা করছি আর কিছুদিন পরই এর দাম কমবে।
রূপসা বাজারের সবজি বিক্রেতা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বাজারে শীতের সবজি এসেছে আরও প্রায় দুই মাস আগে। কিন্তু আলু আর পেঁয়াজের কালি এসেছে ২/৩ দিন হলো। তাই দাম একটু বেশি। তবে পুরনো আলুর দাম এখনো কমেনি। ৫০-৫৫ টাকায় আগের আলু বিক্রি হচ্ছে।
রূপসা বাজারের নিয়মিত ক্রেতা তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, শীতের সবজির দাম এখন অনেক কম। তাই এ সময় সবজি একটু বেশি কেনা হয়।
নগরীর মিস্ত্রিপাড়া বাজারের সবজি বিক্রেতা রুমি বলেন, আজ বাজারে ফুলকপি ৪০-৫০ টাকা, বিটকপি ৫০ টাকা, বাঁধাকপি ৩০ টাকা, ঝিঙে ৫০ টাকা, শিম ৪০-৬০ টাকা, বরবটি ৪০ টাকা, করলা ৫০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা, ঢেঁড়স ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যা কিছুদিন আগে কিনতে গেলেও ৫০-৮০ টাকা পর্যন্ত গুনতে হয়েছে ক্রেতাদের।
টুটপাড়া জোড়কল বাজারের মাছ বিক্রেতা নান্টু, ওবায়দুল্লাহ আর আব্দুর রহিম বলেন, শীতের এই সময়টাতে বাজারে মাছের সরবরাহ একটু বেশি থাকে। খালবিল, ঘের শুকিয়ে আসায় এই সময়ে মাছ ধরে বিক্রি করে দেন চাষীরা। তাই ১২০-২৫০ টাকার মধ্যে নানা প্রকার মাছ পাওয়া যায়। রুই, কাতলা, মৃগেল, শোল, টাকি, টেংরা, পার্শেসহ নানা মাছে এখন বাজার ভরপুর। তবে ইলিশ মাছের দাম কমেনি। এখনো বাজারে দামের দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে ইলিশ মাছ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *