ট্রেনে উঠতে কক্সবাজার স্টেশনে যাত্রীরা

বহুল প্রতীক্ষিত ঢাকা-কক্সবাজার রুটে প্রথমবারের মতো যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল শুরু হচ্ছে আজ। দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে আইকনিক রেল স্টেশন থেকে প্রায় ১ হাজার ৩০ জন যাত্রী নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা করবে ‘কক্সবাজার এক্সপ্রেস’। ইতোমধ্যে যাত্রার সকল প্রস্তুতি শেষ হয়েছে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার আইকনিক রেল স্টেশনের স্টেশন মাস্টার গোলাম রব্বানী।
সাধারণ নাগরিকদের জন্য ট্রেন চলাচল শুরু হবে জেনে সকাল থেকেই দূর দূরান্ত থেকে হাজারো মানুষ ভিড় করেন কক্সবাজার আইকনিক রেল স্টেশনে। পূর্ব-ঘোষণা অনুযায়ী টিকিট বিক্রির কার্যক্রম শুরু হলেও এরই মধ্যে আগামী ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সব টিকিট বিক্রি শেষ বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

যাত্রীদের মধ্যে বেশিরভাগই কোনো কাজে যাওয়ার উদ্দেশ্যে নয় বরং শুধু কক্সবাজার থেকে প্রথম-রেলে চড়ার জন্য দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এসেছেন।

প্রথম ট্রেনের টিকিট পেয়ে উচ্ছ্বসিত যাত্রীরা। ঢাকার টিকিট করা যাত্রী মেজবাহ উদ্দিন বলেন, কক্সবাজার থেকে প্রথম এই যাত্রা ইতিহাস হয়ে থাকবে। তাই আগে থেকেই টিকিট বুকিং করে রেখেছিলাম।

খোরশেদ আলম নামে এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, অনলাইনে টিকিটের জন্য আবেদন নিতে পারেনি। তবে প্রথম রেল ছুটার দৃশ্যটা দেখার জন্য সকাল থেকে অপেক্ষা করছি।

কক্সবাজার আইকনিক রেল স্টেশনের স্টেশন মাস্টার গোলাম রব্বানী বলেন, এক সপ্তাহ আগে থেকে অনলাইন ও অফলাইনে সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। এখন শুধু ৯ ডিসেম্বরের পরের টিকিট বিক্রি হচ্ছে। কক্সবাজার এক্সপ্রেসে ২০ বগিতে আসন সংখ্যা ৭৮০টি। প্রায় ১ হাজার যাত্রী নিয়ে ট্রেনটি যাত্রা করবে। চাহিদা বাড়লে বগিও বাড়ানো হবে।

আরো পড়ুন  সিলেটে নতুন গ্যাসজোনের সন্ধান মিলেছে

রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, নতুন এই ট্রেনে মোট ১৬টি কোচ রয়েছে। আসন আছে ৭৮০টি। ঢাকা থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত শোভন চেয়ারের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৬৯৫ টাকা। এসি চেয়ারের ভাড়া ১ হাজার ৩২৫ টাকা, এসি সিটের ভাড়া ১ হাজার ৫৯০ টাকা এবং এসি বার্থের ভাড়া ২ হাজার ৩৮০ টাকা। অপর দিকে চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত শোভন চেয়ারের ভাড়া ২০৫ টাকা, স্নিগ্ধা শ্রেণির ৩৮৬ টাকা, এসি সিটের ৪৬৬ এবং এসি বার্থের ভাড়া ৬৯৬ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *