ঠাকুরগাঁওয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় আটক ৭

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন, ইলেকট্রনিকস ডিভাইস ও উত্তরপত্র জব্দ করা হয়।

শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সকালে ঠাকুরগাঁও জেলার বিভিন্ন পরীক্ষাকেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঠাকুরগাঁও সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ কবির ঢাকা পোস্টকে বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় সাতজনকে জালিয়াতির অভিযোগে আটক করা হয়েছে। তাদের মধ্যে চারজনের কাছে বিভিন্ন ডিভাইস পাওয়া যায় এবং বাকি তিনজন বাসা থেকে উত্তরপত্র পূরণ করে নিয়ে আসে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আটককৃতরা হলেন- রাণীশংকৈল উপজেলার আলশিয়া গ্রামের মো. হুমায়নের ছেলে মো. সেহানুর ও বাজেবকশা গ্রামের টঙ্কনাথ বর্মনের ছেলে পঞ্চানন চন্দ্র, পীরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামের শমেরুলের স্ত্রী মোছা. আর্জিনা ও টাটুয়াপাড়া গ্রামের আলিম উদ্দিনের ছেলে ওমর ফারুক, বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার হরিণমারী গ্রামের আনিসুর রহমান স্ত্রী হাসনাহেনা ও আলেকসিথি গ্রামের হাসান আলীর ছেলে আনোয়ার খালেক এবং রুহিয়া থানার মধুপুর গ্রামের আজহারুল ইসলামের স্ত্রী রোজিনা খাতুন।

উল্লেখ্য, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ ২০২৩-এর ১ম গ্রুপের (রংপুর, বরিশাল ও সিলেট বিভাগ) আওতাধীন জেলাগুলোতে শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত জেলা পর্যায়ে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এ পর্বের পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৩ লাখ ৬০ হাজার ৬৯৭।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *