রাজবাড়ীতে আ’লীগের দু‘পক্ষের সংঘর্ষ

রাজবাড়ী-২ আসনে নৌকার মনোনীত প্রার্থী জিল্লুল হাকিমের সংবর্ধনায় যাওয়াকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, যুবলীগ নেতা, মেম্বারসহ অন্তত আটজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কালুখালী উপজেলার মৃগী বাজারে ইউপি সদস্য শরিফুল ইসলামের বাড়িতে এ সংঘর্ষ ঘটে।

আহতদের মধ্যে মৃগী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ মতিনকে কালুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে, মৃগী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শামসুল আলম ও মৃগী ইউনিয়ন পরিষদের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য শরিফুল ইসলামকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল জব্বারসহ আহত বাকিদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

মৃগী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শামসুল আলম বলেন, নৌকার মনোনয়ন পেয়ে রাজবাড়ী-২ আসনের সংসদ সদস্য জিল্লুল হাকিম মঙ্গলবার এলাকায় আসেন। দুপুরে কালুখালী বঙ্গবন্ধু চত্বরে তাকে সংবর্ধনা দিতে মোটরসাইকেল শোডাউন নিয়ে আসার সময় ইউপি চেয়ারম্যান মতিন গ্রুপের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ নিয়ে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে চেয়ারম্যান মতিন ও তার লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে ইউপি সদস্য শরিফুল ইসলামের ঘরে হামলা করে। এ সময় বাজার ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। পরে চেয়ারম্যান পক্ষের লোকজন পিছু হটতে বাধ্য হন।

এ বিষয়ে জানতে মৃগী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ মতিনের মোবাইল নম্বরে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

কালুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণ বন্ধু চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, এখন পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *