সিলেটে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

সিলেটে অভিমান করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছে ১৪ বছরের এক কিশোরী। সোমবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার (১০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যার পর নগরের উপকণ্ঠ পীরেরবাজারের বাড়ি থেকে বাবা-মায়ের সঙ্গে অভিযান করে বেরিয়ে আসে ওই কিশোরী। সে পার্শ্ববর্তী পরগনা বাজার সংলগ্ন খুনীরচক এলাকায় পৌঁছামাত্র চার যুবকের খপ্পরে পড়ে সে। যুবকরা তাকে উঠিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করে। সকালে রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওসিসিতে ভর্তি করান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাসেল, আরিফ, স্বপন ও আরও এক যুবক মিলে ওই তরুণীকে রাতভর গণধর্ষণ করে। সকালে ঘটনাটি জানাজানি হলে স্থানীয় মাতব্বররা ঘটনাটি আপস করার চেষ্টা চালায়। গণধর্ষণের ঘটনাটি শুনে শাহপরান থানার তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

সিলেট মেট্রো পলিটন পুলিশের শাহপরাণ থানা পুলিশের ওসি-তদন্ত ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য বলেন, এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। তবে গণধর্ষণের ঘটনা কীনা, তা ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী ফাঁড়ির ইনচার্জ বলতে পারবেন। অবশ্য এ ঘটনায় জড়িতদের কাউকে এখনও গ্রেপ্তার করা যায়নি। খুব শিগগিরই অভিযুক্তদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *