সিসিকের প্যানেল মেয়র হলেন কামরান-লিপন-শানু

সিলেট সিটি করপোরেশন (সিসিক)-এর প্রথম সাধারণ সভায় কাউন্সিলরদের মধ্য থেকে তিনজনকে প্যানেল মেয়র নির্বাচন করা হয়েছে। কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভোট দানে বিরত ছিলেন মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

সোমবার (০৪ ডিসেম্বর) দুপুরে মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিমা ইয়াসমিনের পরিচালনায় সিসিকের প্রথম সভায় পঞ্চম পরিষদের প্যানেল মেয়র নির্বাচন সম্পন্ন হয়।

নির্বাচনে ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মখলিছুর রহমান কামরান প্যানেল মেয়র-১ নির্বাচিত হন। আর প্যানেল মেয়র-২ নির্বাচিত হয়েছেন ২৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন ও প্যানেল মেয়র-৩ নির্বাচিত হয়েছেন সংরক্ষিত ৫ নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর শাহানা বেগম শানু।

সিসিকের জনসংযোগ কর্মকর্তা সাজলু লস্কর জানান, নির্বাচনে মোট ৫৬ জন জনপ্রতিনিধি তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। পরিষদের সবাইকে সমান ভাবে মূল্যায়ন করার প্রেক্ষিতে ভোট দানে বিরত ছিলেন মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী।

এসময় মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী নগরবাসীকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন- গত ২১ জুন আমিসহ পরিষদের সবাইকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করেছেন তার জন্য আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। নগরের উন্নয়ন ও জনগণের স্বার্থে আমরা যেকোন পদক্ষেপ গ্রহণে বদ্ধপরিকর।

তিনি আরও বলেন, আমি, আপনি-আমরা সবাই মিলে সিলেটকে একটি স্মার্ট নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো। সিলেট হবে বাংলাদেশের অন্যতম একটি স্মার্ট নগরী।

এর আগে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামানের সভাপতিত্বে ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহিমা ইয়াসমিনের পরিচালনায় এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

আরো পড়ুন  কক্সবাজারে রেললাইনের নাট-বল্টু খুলে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

সভার শুরুতে নতুন পরিষদকে স্বাগত জানিয়ে বক্তব্য দেন মেয়র মো. আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী তিনি বলেন, সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও নাগরিকদের মতামত নিয়েই নগরীর উন্নয়নে আমাদের সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। সিলেট নগরের উন্নয়নে আমরা সবাই এক এবং অভিন্ন। সকল রাজনৈতিক দল মতের ঊর্ধ্বে থেকে নগরবাসীর প্রত্যাশা পূরণে আমরা একসঙ্গে কাজ করতে চাই।’

তিনি বিজয়ের মাসে মহান মুক্তিযুদ্ধে আত্মদানকারী সকল শহিদদে শ্রদ্বার সাথে স্মরন করেন এবং ১৫ই আগস্টে নিহত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ সকল শহিদদের শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। তিনি প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার প্রতিও বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানান।

সভায় উপস্থিত ছিলেন- ১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বিক্রম কর সম্রাট, ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ.কে.এ লায়েক, ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শেখ তোফায়েল আহমদ সেপুল, ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ, ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফরহাদ চৌধুরী, ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সায়ীদ মোঃ আব্দুল্লাহ, ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জগদীশ চন্দ্র দাশ, ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মখলিছুর রহমান কামরান, ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারেক উদ্দিন তাজ, ১১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুর রকিব বাবলু, ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ সিকন্দর আলী, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শান্তনু দত্ত (সনতু), ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম মুনিম, ১৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ছয়ফুল আমিন (বাকের), ১৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মুহিত জাবেদ, ১৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাশেদ আহমদ, ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এ বি এম জিল্লুর রহমান, ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এস এম শওকত আমীন তৌহিদ, ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আজাদুর রহমান আজাদ, ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আব্দুর রকিব তুহিন, ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ ফজলে রাব্বী চৌধুরী, ২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোস্তাক আহমদ, ২৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হুমায়ূন কবীর সুহিন, ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তাকবির ইসলাম পিন্টু, ২৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ তৌফিক বকস, ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল জলিল নজরুল, ২৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রায়হান হোসেন, ২৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মাজহারুল ইসলাম শাকিল, ৩০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রকিব খাঁন, ৩১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রকিব খাঁন, ৩২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রুহেল আহমদ, ৩৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেলোয়ার হোসেন, ৩৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ জয়নাল আবেদীন, ৩৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম, ৩৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হিরন মাহমুদ নিপু, ৩৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ রিয়াজ মিয়া, ৩৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ হেলাল উদ্দিন, ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলতাফ হোসেন সুমন, ৪০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর লিটন আহমদ, ৪১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ফখরুল আলম, ৪২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মতিউর রহমান। ১ নং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর এডভোকেট সালমা সুলতানা, ২ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর কুলসুমা বেগম পপি, ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর রেবেকা বেগম রেনু, ৪ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর মোছাঃ রুহেনা খানম মুক্তা, ৫ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শাহানা বেগম শানু, ৬ নং ওয়ার্ডের ্র সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শাহানারা বেগম, ৭ নং ওয়ার্র্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নার্গিস সুলতানা, ৮ নং ওয়ার্র্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শারমিন আক্তার রুমি, ৯ নং ওয়ার্র্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ছামিরুন নেছা, ১০ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর আয়েশা খাতুন কলি, ১১ নং ওয়ার্র্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর সাজেদা বেগম, ১২ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর, ১৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ফাতেমা বেগম, ১৪ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর বাবলী আক্তার।

আরো পড়ুন  বিআরটিএ’র গণশুনানিতে হয়রানির কথা বলতে গিয়ে কাঁদলেন চালক

এছাড়াও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমানসহ সিলেট সিটি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *