হত্যা মামলায় ১৮ বছর পর সব আসামির খালাস

মাদারীপুরের আলোচিত ইরিব্লকের ম্যানেজার আশরাফ আলী বেপারী হত্যা মামলায় ১৮ বছর পর সব আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।
রোববার (২৬ নভেম্বর) বিকেলে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-১ এর বিচারক লায়লাতুল ফেরদৌস এ রায় দেন। এর আগে রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে পুরো আদালতজুড়ে নেওয়া হয় কঠোর নিরাপত্তা।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২০০৫ সালের ১২ মার্চ সকালে পূর্ব শত্রুতার জেরে মাদারীপুর সদর উপজেলার ঘটমাঝি ইউনিয়নের আমড়াতলা গ্রামের হামিদ বেপারীর ছেলে আশরাফকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন নিহতের বড় ভাই সিদ্দিকুর রহমান বাদী হয়ে ৪৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ২৫-৩০ জনকে আসামি করে সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

এরপর ২০০৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর পুলিশ ৪৬ জনের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। বিভিন্ন সময় আদালত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা, মেডিকেল অফিসারসহ ১৬ জনের সাক্ষ্য নেন। দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় আদালত সকল আসামিকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেন।
এসময় ৯৫ পৃষ্ঠার রায়ে আদালত বলেন, পূর্বের শত্রুতা ও পুরোনো চারটি মামলা থেকে মুক্তি পেতে এ মামলায় আসামিদের জড়ানো হয়েছে। যা সমাজের জন্য খুবই ক্ষতিকারক। রাষ্ট্রপক্ষ এ হত্যা মামলায় পর্যাপ্ত সাক্ষ্যপ্রমাণ হাজির করতে পারেনি। এছাড়া নিহতের স্ত্রীও তার সাক্ষ্যতে নানারকম কথা বলেছে। এসব বিবেচনায় সব আসামিই খালাস পেয়েছে।
আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাফর আলী মিয়া জানান, এ রায়ের মাধ্যমে আমরা ন্যায় বিচার পেয়েছি। আশরাফকে হত্যা করা হলেও মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা জড়িত ছিলেন না। পূর্ব শত্রুতার কারণেই এ মামলায় তাদের নাম দেওয়া হয়েছিল।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট গোলাম আজম শামীম গৌড়া বলেন, এ রায়ের বিরুদ্ধে বাদীপক্ষ আপিল করবে। বাদীপক্ষ মামলায় যথেষ্ট সাক্ষ্য ও প্রমাণ আদালতে উপস্থাপন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *