নির্বাচনে তরুণ প্রজন্মকে বড় ভূমিকা রাখতে হবে : জবি উপাচার্য

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম বলেছেন, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তরুণ প্রজন্মের বড় ভূমিকা পালন করতে হবে। সাম্প্রদায়িকতা রুখতে সবাইকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। সবাইকে অসাম্প্রদায়িক মনোভাব ধারণ করতে হবে। আমি নিজেও অসাম্প্রদায়িক এবং ধর্ম নিরপেক্ষ।

মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে গৌরবদীপ্ত বিজয় শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

উপাচার্য বলেন, আমাদের কাছে বিজয় দিবসের গুরুত্ব অনেক বেশি। বিজয়ের মাসে আমাদের সবাইকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করতে হবে বঙ্গবন্ধুকে।

তিনি আরও বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা কোনো হল না থাকায় আবাসন সংকটে অমানবিক জীবনযাপন করে। তাদের কথা ভেবে অন্তত আমরা নতুন ক্যাম্পাসের কাজ দ্রুত শেষ করার চেষ্টা করছি।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার আলোচনায় মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি মফিদুল হক বলেন, আমাদের স্বাধীনতার পেছনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় তথা তৎকালীন জগন্নাথ কলেজের অনেক বড় ভূমিকা রয়েছে। এসময় তিনি বঙ্গভঙ্গসহ স্বাধীনতা পূর্ব আন্দোলনে এদেশের মানুষের অবদানের কথা তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. হুমায়ূন কবির চৌধুরী বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি আবারও সক্রিয় হয়ে ওঠেছে। তাই তাদের অপতৎপরতার ব্যাপারে আমাদের আরও সতর্ক হতে হবে।

তিনি আরও বলেন, কোনো সমঝোতার মাধ্যমে এদেশ স্বাধীন হয়নি। আমাদের দেশ স্বাধীনতা লাভ করে ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে ও মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে। বঙ্গবন্ধুর ডাকে পুরো জাতি একাত্মতা পোষণ করে দেশ স্বাধীন করে।

আরো পড়ুন  প্রথম থেকে তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত সাময়িক পরীক্ষা থাকবে না

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, কলা অনুষদের ডিন ও অনুষ্ঠান আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. হোসনে আরা বেগম।

সভা শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। নাট্যকলা বিভাগের অংশগ্রহণে নাটক মঞ্চায়ন ও নৃত্য পরিবেশনা এবং সংগীত বিভাগের অংশগ্রহণে সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। পরবর্তীতে আবৃত্তি সংসদ, সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এবং উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর অংশগ্রহণে বিভিন্ন পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগীয় চেয়ারম্যান, বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, প্রক্টর, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক, সাংবাদিক ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *