পরকীয়া সুস্থতার লক্ষণ : অপরাজিতা

পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে বর্তমানে সমাজে ব্যাপক আপত্তি থাকলেও ওপার বাংলার টিভি সিরিয়ালের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য মনে করেন, ‘পরকীয়া সুস্থতার লক্ষণ’।

সম্প্রতি আনন্দবাজারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই মন্তব্য করেছেন তিনি। অপরাজিতা বললেন, ‘কেন পরকীয়া আটকাতে হবে। এটা তো সুস্থতার লক্ষণ। রামায়ণ-মহাভারতের সময় থেকে ছিল পরকীয়া। এটা জীবনের স্বাভাবিক ধর্ম। কারও কাউকে ভালো লাগতেই পারে। আমি কারও সঙ্গে ঘর করি বলে জীবনে কাউকে ভালোবাসব না, কোনও ভালো জিনিস দেখব না, এমনটা তো হতে পারে না। যার যত অপশন বেশি, তার জীবনে তত মানুষ আসতেই পারে। এবার কেউ সেটা কীভাবে ব্যালেন্স করবে সেটা সেই মানুষটার ব্যাপার। কিন্তু এটা কোনও অপরাধ নয়।’

অপরাজিতা মনে করেন, বিয়ের পর কিংবা সম্পর্কে থাকাকালীন সময়েও অন্য কারো প্রতি ভালো লাগা তৈরি হতে পারে। অভিনেত্রীর ভাষায়, ‘আমি আমার সংসারকে বেশি গুরুত্ব দেব না, অন্য কাউকে সেটা ঠিক করতাম। পাখিকেও তো খাচায় বন্দি রাখা ঠিক নয়। শুধু কাউকে না ঠকালেই হবে।’

অপরাজিতা বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন ‘জল থই থই ভালোবাসা’ ধারাবাহিকে। এর আগে লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টারে কাজ করেছিলেন তিনি। কোজাগরীর চরিত্রে মধ্যবয়স্কা এক মহিলা হিসেবে পর্দায় হাজির হয়েছেন অভিনেত্রী। যে পরিবারের জন্য সবসময় নিবেদিত থাকেন।

এর আগে একটি রিয়্যালিটি শো-এর সঞ্চালিকার ভূমিকায় দেখা গিয়েছিল অপরাজিতাকে। পাশাপাশি এই অভিনেত্রী অভিনীত ‘চিনি ২’ সিনেমা মুক্তি পেয়েছে কিছুদিন আগেই।

অভিনয়ের পাশাপাশি পেশাদারভাবে নাচ করেন অপরাজিতা, শেখানও। তার একটি নাচের স্কুলও রয়েছে। অপরাজিতার জীবনের প্রথম উপার্জন হয়েছিল এই নাচের স্কুল থেকেই। ছোটপর্দার পাশাপাশি বড় পর্দায় অভিনয় করে ইতোমধ্যেই বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *