প্রতারণার মামলায় জামিন পেলেন জারিন খান

আর্থিক প্রতারণার মামলায় অভিযুক্ত বলিউড অভিনেত্রী জারিন খানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে পশ্চিমবঙ্গের শিয়ালদহ আদালত।

সোমবার (৪ ডিসেম্বর) শিয়ালদহ আদালতে আত্মসমর্পণের পর জামিনের আবদন করেন ওই বলিউড অভিনেত্রী।

পরে বিচারক শুভজিৎ রক্ষিত তাঁকে শর্তসাপেক্ষে অন্তর্বর্তী জামিন দেন। ৩০ হাজার টাকার বন্ডে অভিনেত্রীকে জামিন দেয়া হয়।

জামিনের শর্ত, আদালতের অনুমতি ছাড়া দেশের বাইরে যেতে পারবেন না জারিন। প্রতিটি শুনানিতে অভিনেত্রীকে আদালতে হাজির থাকতে হবে। মামলার পরবর্তী শুনানি ২৬ ডিসেম্বর।

শুনানি চলাকালে এজলাসের একটি বেঞ্চে বসে ছিলেন সালমান খানের ‘বীর’ ছবির এ নায়িকা। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৮ সালে কালীপুজোর সময় উত্তর কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনায় ৬টি অনুষ্ঠানে থাকার জন্য একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সংস্থার কাছথেকে ১২ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন। কিন্তু সেই অনুষ্ঠানগুলোতে তিনি আসেননি।

ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সংস্থার মালিক বিশাল গুপ্তের অভিযোগ, জারিনকে নিয়ে আসার সবরকম ব্যবস্থাপনার পেছনে তাঁদের প্রায় ৪৫ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। অভিনেত্রী অগ্রিম ১২ লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন।

বাকি টাকা জারিনের নিরাপত্তা, বিমান ভাড়া, হোটেল ভাড়া বাবদ খরচ হয়েছে। ২০১৮ সালে জারিন ও তার প্রাক্তন ম্যানেজারের বিরুদ্ধে নারকেলডাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন বিশাল।

এ দিন আদালত চত্বরে বিশালের আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘জারিন অনুষ্ঠানে যোগ না দেয়ায় তার কাছ থেকে ৪৫ লক্ষ টাকা ফেরত চাওয়া হয়। এসময় অভিনেত্রী আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেন। আমাকে মুম্বাই ছাড়তে বাধ্য করা হয়।’

আরো পড়ুন  যে কারণে নিজের বাড়িতে হেনস্তার শিকার হয়েছে সোহিনী

অবশ্য জারিনের আইনজীবী পবন আগারওয়ালের দাবি, ‘জারিনের বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা।’

আদালত সূত্রের খবর, ইতিমধ্যে ওই মামলার চার্জশিট আদালতে পেশ করেছে পুলিশ। জারিনের প্রাক্তন ম্যানেজার মামলাটিতে আগাম জামিন পেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *