ইউক্রেনের ভয়াবহ হামলা, কঠোর জবাব দেওয়ার হুমকি রাশিয়ার

রাশিয়ার সীমান্তবর্তী অঞ্চল বেলগোরোদে ভয়াবহ হামলা চালিয়েছে ইউক্রেনের সেনারা। এতে কমপক্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন একশরও বেশি মানুষ।

বেলগোরোদে হামলা নিয়ে শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) একটি বিবৃতি দিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। এতে তারা হুমকি দিয়েছে, ইউক্রেনের এ হামলার কঠোর জবাব দেওয়া হবে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, বেলগোরোদের হামলায় ব্যবহার করা হয়েছে ইউক্রেনের ওলখা এবং চেক রিপাবলিকের তৈরি ভ্যাম্পায়ার রকেট। এই রকেটগুলোতে ক্লাস্টার ওয়ারহেড বসানো ছিল। যদিও প্রায় সব রকেটই প্রতিহত করা হয়েছে। তবে কয়েকটি বেলগোরোদে আঘাত হেনেছে। এতে ১২ জন প্রাপ্তবয়স্ক ও দুটি শিশু নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন ১০৮ জন।

হামলার জবাব দেওয়ার হুমকি দিয়ে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘কিয়েভ সরকার, যেটি এই অপরাধ সংঘটিত করেছে, তারা যুদ্ধের সম্মুখভাগে নিজেদের পরাজয় আড়ালের চেষ্টা চালাচ্ছে। এছাড়া আমাদের উস্কানি দেওয়ার চেষ্টা করছে। এই অপরাধের বিচার অবশ্যই হবে।’

রুশ মন্ত্রণালয় বিবৃতিতে আরও বলেছে, রুশ বাহিনী শুধুমাত্র ইউক্রেনের সামরিক অবকাঠামোতে হামলা চালায় এবং এই হামলা অব্যাহত থাকবে।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাত থেকে শুক্রবার ভোর পর্যন্ত ইউক্রেনের বিভিন্ন অঞ্চল লক্ষ্য করে একশরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ে রাশিয়া। এতে প্রায় ৪০ ইউক্রেনীয় নিহত হন। শক্তিশালী ওই ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পরই রাশিয়ার বেলগোরোদ লক্ষ্য করে হামলা চালিয়েছে ইউক্রেনও।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, হামলার দায় স্বীকার করেছে ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থা। তবে তারা দাবি করেছে, এই হামলায় লক্ষ্য করা হয়েছিল সামরিক অবকাঠামো। কিন্তু রুশ বাহিনীর ভুলে এতে বেসামরিক মানুষ ক্ষয়ক্ষতির শিকার হয়েছেন।

আরো পড়ুন  গাজার খান ইউনিসের কাছে ইসরায়েলি ট্যাংক

সূত্র: বিবিসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *