শীতে ত্বক ফাটছে? সমাধান মিলবে গরম পানিতে

শীতকালে শুষ্ক ত্বকের সমস্যা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। যাদের ডায়াবেটিস আছে, এই সময়ে তাদের সমস্যা আরও গুরুতর হয়। দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস, থাইরয়েডের মতো রোগ থাকলে ত্বক মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তার ওপর শীতের শুষ্ক আবহাওয়ায় ত্বক থেকে পানির পরিমাণ অনেকটাই কমে যায়। ঠান্ডায় পানি খাওয়ার পরিমাণও অনেকটাই কমে যায়। এতে শুষ্ক ত্বকের সব থেকে বেশি ছাপ পড়ে মুখে। জেল্লা হারিয়ে যায়, ত্বকে জ্বালাভাব শুরু হয়। বাজারের নামিদামি প্রসাধনীতেও রক্ষা পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ে।

তবে পানি দিয়েই হতে পারে মুশকিল আসান। নিয়মিত গরম পানির ভাপ নিলে কেবল ফুসফুসের সংক্রমণ আটকায় না, বরং ত্বকের বিভিন্ন সমস্যাও দূর হয়। জেনে নিন উজ্জ্বল ত্বকের জন্য কেন ভাপ নেওয়া জরুরি।

ত্বক আর্দ্র রাখতে : শীতে ত্বক আর্দ্র রাখা ভীষণ জরুরি। স্টিমিং থেরাপি ত্বকে আর্দ্রতা বজায় রাখতে দারুণ কার্যকর। ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করে ফেস স্টিমিং পদ্ধতি অনুসরণ করলে তা ত্বকের গভীরে প্রবেশ করে। ত্বক নরম ও কোমল দেখায়।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি : স্টিমিং থেরাপি মুখের ত্বকের রন্ধ্রগুলো খুলতে, মৃত কোষ ও ময়লা দূর করতে সাহায্য করে। ব্ল্যাকহেডস বা হোয়াইটহেডসের সমস্যা থাকলে নিয়মিত গরম জলের ভাপ নিলে সেগুলো নরম হয় ফলে ত্বক থেকে সহজে নির্মূল করা যায়।

রক্তসঞ্চালন স্বাভাবিক রাখতে : শীতের সময়ে ত্বক নিস্তেজ হয়ে পড়ে। ক্লান্ত দেখায়। ত্বকের ক্লান্তি ভাব দূর করতে স্টিম থেরাপির ওপর ভরসা রাখতে পারেন। এর ফলে মুখের রক্তসঞ্চালনের মাত্রা স্বাভাবিক হয়। ত্বকে অক্সিজেন সরবরাহ ভালো হয় বলে ত্বকে জেল্লা দেখায়।

আরো পড়ুন  চুল পড়া বন্ধ করতে রসুনের ব্যবহার

ত্বকে বয়সের ছাপ ঠেকিয়ে রাখতে : বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের চামড়া কুঁচকে যায়। অনেকের আবার অল্প বয়সেই মুখে বয়সের ছাপ পড়তে শুরু করে। নিয়মিত ভাপ নিলে ত্বকে কোলাজেন ও এলাস্টিনের উৎপাদন বাড়ে। এই উপাদানগুলো ত্বককে মসৃণ ও টানটান রাখতে সাহায্য করে।

ব্রণের হাত থেকে মুক্তি পেতে : আপনার ব্রণের সমস্যা থাকলে গরম জলের মধ্যে নিমপাতা দিয়ে ভাপ নিতে পারে। ত্বকের হারানো জেল্লা ফিরে পেতে গরম পানির মধ্যে এক চামচ হলুদ মিশিয়ে ভাপ নিলেই ফিরে পেতে পারেন হারানো জেল্লা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *