ঢাকার রাস্তায় বেড়েছে গাড়ির চাপ

বিএনপি-জামায়াতের টানা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি শেষ হয়েছে মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) ভোর ৬টায়। আজ তাদের এ ধরনের কোনো কর্মসূচি নেই। একদিন বিরতি দিয়ে বুধবার (২৯ নভেম্বর) ভোর থেকে আবারও অবরোধ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়ে রেখেছে বিএনপি। আর আজ অবরোধ কর্মসূচি না থাকায় রাস্তায় যানবাহনের চাপ বেড়েছে। সেই সঙ্গে বিভিন্ন এলাকার সড়কে যানজটও দেখা গেছে।
মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বাড্ডা, রামপুরা, শান্তিনগর ও কাকরাইল এলাকার সড়ক ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

সরেজমিন দেখা যায়, সকাল থেকে অফিসগামী যাত্রীদের ভিড় ছিল যানবাহনে। অবরোধের সময় যারা রাস্তায় বের হতেন তাদের মধ্যে আতঙ্ক ছিল, কিন্তু আজ অবরোধ না থাকায় প্রয়োজনীয় কাজ সারতে অন্যরাও বাইরে বেরিয়েছেন। যে কারণে সড়কে মানুষের উপস্থিতি বেশি দেখা গেছে।

এছাড়া উত্তর বাড্ডা থেকে রামপুরা আবুল হোটেল পর্যন্ত সকাল থেকেই যানচলাচলে ধীরগতিতে ছিল।

রাস্তায় বের হওয়া ও অফিসগামী যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বিএনপির ডাকা প্রথম দফা অবরোধের সময় মানুষ রাস্তায় বের হতে ভয়ে থাকত। কিন্তু অবরোধের দিন যত বাড়ছে ভয়ও কমে যাচ্ছে। প্রয়োজনীয় কাজ সারতে মানুষ অবরোধের সময়েও রাস্তায় বের হচ্ছে।

আজ বেলা ১১টায় রাজধানীর উত্তর বাড্ডা থেকে বাসে করে শান্তিনগরে আসা যাত্রী মো. রাব্বী বলেন, এখন অবরোধে আর আতঙ্ক নেই। প্রতিদিনই অফিস করতে হয়। তবে আজকের দিনের মতো যে দিনগুলো অবরোধ কিংবা হরতাল থাকে না, সেদিন রাস্তায় বের হতে আরও ভালো লাগে।

আরো পড়ুন  সংশোধন হচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট আইন

অবরোধের পর যানজট নিয়ে গণপরিবহন চালকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অবরোধ কিংবা হরতালের দিন গাড়ি পোড়ানোর আশঙ্কা থাকে। তাই যে দিনগুলোতে অবরোধ থাকে না সেই দিনে সড়কে গাড়ির চাপ বেশি থাকে। গাড়ির চাপ বেশি থাকায় স্বাভাবিক দিনের মতো ঢাকার রাস্তায় যানজটও থাকে।

এ বিষয়ে সদরঘাট থেকে উত্তরাগামী ভিক্টর পরিবহনের একটি বাসের চালক মো. রাজু বলেন, আজকে রাস্তায় অনেক গাড়ি, তাই যানজট রয়েছে। আজ অবরোধ নেই। তাই গাড়ি পোড়ানোর আশঙ্কা নেই।

মহানগর পুলিশের ট্রাফিক (ডিএমপি) বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, অবরোধের দিনগুলোর তুলনায় যেই দিনগুলোতে রাজনৈতিক কোনো কর্মসূচি থাকে না সেদিনগুলোতে রাস্তায় গাড়ির চাপ বেশি থাকে। আজ কোনো কর্মসূচি না থাকায় সকাল থেকে রাস্তায় গাড়ির চাপ অনেক বেশি।

এ বিষয়ে মহানগর পুলিশের ট্রাফিক (ডিএমপি) বিভাগের বাড্ডা জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) অমিত কুমার দাস ঢাকা পোস্টকে বলেন, গত দুই-তিনদিনের তুলনায় আজকে রাস্তায় গাড়ির চাপ বেশি। ফলে বাড্ডা থেকে রামপুরা ব্রিজ পর্যন্ত যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *