নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা তা জানি না : হিরো আলম

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়া-৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী আলোচিত কন্টেন্ট ক্রিয়েটর আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম বলেছেন, এখন পর্যন্ত নির্বাচনের যে পরিবেশ দেখছি তাতে ভালোই মনে হচ্ছে। তবে শেষ পর্যন্ত নির্বাচন সুষ্ঠু হবে কিনা তা জানি না।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুর সোয়া ১২টায় আগারগাঁও নির্বাচন ভবন প্রাঙ্গনে তিনি এসব কথা বলেন।

এরআগে তার মনোনয়নপত্রের বৈধতা ফিরে পেতে ২ নম্বর বুথের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নির্বাচনী প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল হাসান ভূঁইয়ার কাছে আপিল আবেদন জমা দেন।

হিরো আলম বলেন, আপনারা জানেন আমি তিনবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। একবারও কেউ আমার কোনো কাগজে ভুল ধরতে পারেনি। আর এবার আমার কাগজে ভুল ধরা হয়েছে। আসলে ইচ্ছা করলে ওই দিনই (মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের দিন) নির্বাচন অফিসেই সমাধান করতে পারতাম। মানুষ মাত্রই ভুল হয়। আমিও ভুল করে একটি সুযোগ চেয়েছিলাম কিন্তু তারা দেয়নি। আমার কোনো ঋণ নেই, মামলা নেই। শুধু কাগজপত্র একটু সমস্যার কারণে আমার মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে।

তিনি বলেন, প্রতিবারই আমি স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করি আর আমার প্রার্থিতা বাতিল হয়। সেজন্য এবার আমি চিন্তা করলাম দল থেকে নির্বাচন করবো। এজন্য এবার ডাব মার্কা প্রতীকে কংগ্রেস থেকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। কিন্তু এবারও তারা কিছু ভুল ধরে আমার প্রার্থীতা বাতিল করলো। সেজন্য আজকে এখানে এসে আপিল আবেদন করেছি। আশা করছি আমার ভুল সংশোধন হয়ে এখান থেকে বৈধতা ফিরে পাবো।

আরো পড়ুন  তৃতীয় দিনে আপিল শুনানি শেষে যে রায় দিচ্ছে ইসি

এখানে প্রার্থিতা ফিরে না পেলে পরবর্তীতে কি করবেন এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি বলেন, আমরা হাইকোর্টে যাব। তবে আমি বিশ্বাস করি যে ভুল সেটা এখান থেকেই সংশোধন হবে। তাছাড়া আমার এলাকায় বড় সবকটি দলই নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। আর আমার তো প্রতিবারই আওয়ামী লীগের লোকের সঙ্গে মারামারি হয়। এবারও মারামারি হবে কিনা সেটি জানি না।

এলাকার লোকজনের অনুরোধে নির্বাচনে দাঁড়িয়েছেন উল্লেখ করে হিরো আলম বলেন, আমি আগে বলেছি নির্বাচন করবো না এবং এবার নির্বাচন করার ইচ্ছাও ছিলো না। কিন্তু এলাকার লোকজন বললেন, সংগ্রাম করে এতদূরে এসেছেন কেন নির্বাচন করবেন না? তাই তাদের অনুরোধেই নির্বাচনে দাঁড়িয়েছি। তবে এখন নির্বাচন কতটা সুষ্ঠু হয় সেটাই মূল বিষয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে বগুড়া- ৪ (কাহালু-নন্দীগ্রাম) আসন থেকে হিরো আলম মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছিলেন। তবে যথাযথভাবে মনোনয়নপত্র পূরণ না করায় জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও বগুড়ার জেলা প্রশাসক সাইফুল ইসলাম তার প্রার্থিতা বাতিলের ঘোষণা দেন। যার প্রেক্ষিতে তিনি আজ নির্বাচন কমিশনে এসে মনোনয়নপত্রের বৈধতা ফিরে পেতে আপিল আবেদন করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *