বিএনপি নির্বাচনে এলেও ২৮ জানুয়ারির মধ্যেই ভোট : ইসি রাশেদা

বিএনপি নির্বাচনে আসার সিদ্ধান্ত নিলেও ২৮ জানুয়ারির মধ্যেই ভোট করতে হবে বলে জানান নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা।
সোমবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে বগুড়া শহরের বিয়াম ফাউন্ডেশনের কনফারেন্স হলে প্রস্তুতি সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এই কথা জানান।
এক প্রশ্নের জবাবে রাশেদা সুলতানা বলেন, আমরা চাই নিবন্ধন পাওয়া সব দল অংশগ্রহণ করুক। এই কারণে সবাইকে নির্বাচনে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা এখনো আশাবাদী, উনারা (বিএনপি) আসবেন। যদি আসে তাহলে আমরা অবশ্যই বিবেচনা করবো। তবে উনারা এলে অবশ্যই আমাদের নির্বাচনী মেয়াদকালের মধ্যে আসতে হবে। কেননা কোনোভাবেই বিধিবদ্ধ সময় ২৮ জানুয়ারির বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই। এটি সংবিধানের বিধান।
নির্বাচনের কেন্দ্রগুলোতে সিসি ক্যামেরা রাখার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে আর কোনো কথা নেই আমাদের। কারণ সিসি ক্যামেরা দিলে ৪২ লাখ কক্ষে দিতে হবে। একসঙ্গে এতগুলো ক্যামেরা স্থাপনের সক্ষমতা কোনো কোম্পানির নেই।
তিনি আরও বলেন, নির্বাচনে সাংবাদিকরা কোনোভাবে হেনস্তা হলে অভিযোগ সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আসন্ন নির্বাচনে সুষ্ঠু ভোটের পরিবেশ রাখার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পূর্ণ সক্ষমতা আছে। আর যদি প্রয়োজন হয় সেনাবাহিনী মাঠে নামবে। তবে তারা স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নির্বাচনে উপস্থিত থাকবে।
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষ্যে এই প্রস্তুতি সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর। প্রস্তুতি সভায় বগুড়া ছাড়াও সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ, জয়পুরহাটের জেলা রিটার্নিং অফিসার, পুলিশ সুপার, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, থানার অফিসার ইনচার্জরা উপস্থিত ছিলেন।
বগুড়ার ৭ আসনে মোট ভোটার সংখ্যা ২৮ লাখ ২৮ হাজার ৩৪৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৪ লাখ ৪ হাজার ৩২১ এবং নারী ভোটার ১৪ লাখ ২৪ হাজার ২৩ জন। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৯৬৯টি। স্থায়ী ৫ হাজার ৮১৫টি ও অস্থায়ী ৪০৮টি মিলে মোট ৬ হাজার ২২৩টি কক্ষে ভোট দেবেন জেলাবাসী।

আরো পড়ুন  বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩০ নভেম্বর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই হবে ১ থেকে ৪ ডিসেম্বর, মনোনয়ন আপিল ও নিষ্পত্তি ৬ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১৭ ডিসেম্বর। প্রতীক বরাদ্দ হবে ১৮ ডিসেম্বর এবং নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা ১৮ ডিসেম্বর থেকে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত চলবে। ভোটগ্রহণ ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে। সংসদ নির্বাচনের জন্য ৬৬ জন রিটার্নিং কর্মকর্তা এবং ৫৯২ জন সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *