অস্ট্রেলিয়ান পত্রিকায় রোহিত-কোহলিকে ব্যঙ্গ

ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ টুর্নামেন্ট ওয়ানডে বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর সপ্তাহ ছাড়াতে চলল। কিন্তু এখনও রয়ে গেছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা। আহমেদাবাদের অনুষ্ঠিত দুই দলের ফাইনালে যদিও বিতর্কিত কিছু ঘটেনি। নিজেদের দলীয় নৈপুণ্যে টুর্নামেন্টজুড়ে উড়তে থাকা ভারতকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া। এরপর ভারতীয় সমর্থকরা একের পর এক অজি ক্রিকেটারদের ওপর তোপ দাগছেন। এবার তেমনটা দেখা গেল অস্ট্রেলিয়ায়ও। রোহিত-কোহলিদের ব্যঙ্গ করে দেওয়া পোস্টে ‘লাইক’ দিয়ে বিতর্ক বাড়িয়েছেন প্যাট কামিন্স ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলরা।
গত ১৯ নভেম্বর বিশ্বকাপের ফাইনালের ভেন্যু আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে যেন তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। রোহিতদের শিরোপা উৎসব দেখতে হাজির হয়েছিলেন প্রায় লাখো সমর্থক। আহমেদাবাদ যেন নীল সমুদ্রে ভাসছিল। এমন সমুদ্রে বিষাদের নীল ছড়িয়ে দেন কামিন্সবাহিনী। দারুণ বোলিংয়ে তারা প্রথমে ভারতকে আটকে দেন মাত্র ২৪০ রানে। এরপর সেই রান তারা ট্র্যাভিস হেডের সেঞ্চুরি ও মার্নাস লাবুশেনের ফিফটিতে পেরিয়ে যায় ৬ উইকেট হাতে রেখেই। এরপর থেকে অজিবাহিনীকে নিশানা বানিয়েছেন ভারতীয় সমর্থকরা। এবার সেই স্রোতে গা ভাসাল অস্ট্রেলিয়ানরাও।
ভারতীয় ক্রিকেটারদের ব্যঙ্গ করে অস্ট্রেলিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে একটি ছবি প্রকাশ করা হয়। ‘দ্য বেতুতা অ্যাডভোকেট’ নামে পত্রিকার ওই ছবিতে দেখা যায়, হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে রয়েছেন হেড। তার পাশে ১১ নার্সের কোলে ১১টি বাচ্চা। বাচ্চাদের মুখের জায়গায় বসানো হয়ে বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতের হয়ে খেলা ১১ ক্রিকেটারের ছবি। সঙ্গে লেখা হয়েছে, ‘দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার এক ব্যক্তি ১১টি পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন।’
ছবিটি প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। বিতর্ক বাড়িয়ে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কামিন্স ও ম্যাক্সওয়েল। তারা বিতর্কিত সেই ছবিতে ‘লাইক’ দিয়েছেন। প্রতিপক্ষ দলের ক্রিকেটারদের এমন কুৎসিত অপমানের প্রতিবাদ না করে তারাও অংশগ্রহণ করেছেন রসিকতায়। যা নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদের একাংশ তাঁদের পাল্টা নিন্দা জানিয়েছেন।
এর আগে ভারতের মাটিতে ফেভারিট রোহিদের হারিয়েই ষষ্ঠ বিশ্বকাপ জেতায় অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের নিয়ে প্রথম বিতর্কের জন্ম দেয় স্বাগতিক সমর্থকরা। ভারতের হৃদয় ভেঙে ‘ম্যান অব দ্য ফাইনাল’ হেডের পরিবারকে ধর্ষণের হুমকি দেন এক ভারতীয়। অস্ট্রেলীয় ওপেনারের স্ত্রী এমনকি এক বছরের মেয়েকেও ধর্ষণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। অবশ্য এমন কদর্য আক্রমণ এবং মানসিকতার নিন্দা জানান ভারতেরই অনেক ক্রিকেটপ্রেমী। কেউ কেউ আবার পুলিশের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টাও করেছেন। অস্ট্রেলিয়া দলের পক্ষ থেকে অবশ্য এই ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।
এছাড়া, বিয়ার হাতে বিশ্বকাপ ট্রফির ওপর পা তুলে উদযাপন করছেন মিচেল মার্শ— এমন ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছিলেন অজি অধিনায়ক প্যাট কামিন্স। এরপর মার্শের নামে মামলা করেছেন পন্ডিত কেশব নামের এক ভারতীয় অ্যাক্টিভিস্ট। তার অভিযোগ, মার্শ পায়ের নিচে বিশ্বকাপ ট্রফি রেখে ছবি তুলে ভারতীয় ক্রিকেট ভক্তদের অনুভূতিতে আঘাত করেছেন। কেশবের বিশ্বাস, বিশ্বকাপ ট্রফিকে অপমান মানে ১৪০ কোটি ভারতীয়কেও অপমান করা। এজন্য থানায় এফআইআর দায়ের করেছেন উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ের এই আরটিআই অ্যাক্টিভিস্ট। একইসঙ্গে তার দাবি– মার্শকে যেন ভারতের মাটিতে আর কোনো সময় খেলার অনুমতি দেওয়া না হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *