ধারাভাষ্যে তামিম, মাঠে বাংলাদেশের শতরান

৪৭ রানে নেই ৪ উইকেট। মিরপুরের শের-এ বাংলা স্টেডিয়ামের চেনা পিচেও একেবারেই ছন্নছাড়া এক সকাল পার করেছিল বাংলাদেশের টপঅর্ডার। সেখান থেকেই কিছুটা লড়াইয়ের আভাস দিলেন দুই ব্যাটার মুশফিকুর রহিম এবং শাহাদাত হোসেন দিপু। দেখেশুনে দুজনে পার করেছেন বাংলাদেশের শতরান। দুজনের পার্টনারশিপও ৫০ পেরিয়েছে।

মাঠে বাংলাদেশ যখন কিছুটা সম্মানজনক অবস্থানে আছেন, তখন ধারাভাষ্যকেন্দ্রে আছেন জাতীয় দলেরই আরেক অভিজ্ঞ মুখ তামিম ইকবাল। কোমরের পুরাতন চোটের জন্য আপাতত মাঠের বাইরে আছেন তামিম। সেই সুবাদেই ঘুরে গেলেন মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে। এর আগেও অবশ্য তামিমকে কণ্ঠ দিতে শোনা গিয়েছে।

তামিম ইকবাল অনেক আগেই জানিয়েছিলেন ক্রিকেট ছাড়ার পর কমেন্ট্রিতেই খানিক আগ্রহ পান তিনি। এমনকি ২০২৪ বিশ্বকাপে ধারাভাষ্যকক্ষে তাকে দেখা যেতে পারে এমন আভাসও দিয়ে রেখেছেন টাইগারদের সাবেক অধিনায়ক। এদিন ধারাভাষ্য শুরু করার আগে প্রেসবক্সে সাংবাদিকদের সঙ্গে হালকা আড্ডায় মেতে ওঠেন সাবেক টাইগার এই অধিনায়ক।

তামিম যখন প্রেসবক্সে পরিবেশ হালকা করেছেন, তখন মাঠে বাংলাদেশকে খানিক স্বস্তি এনে দিয়ে লড়াই করছিলেন মুশফিক আর দিপু। ৪৭ রানে ৪ উইকেট পতনের পর থেকে দুজন মিলে সময় নিয়ে ইনিংস মেরামতে কাজ করে গিয়েছেন। শুরুর চার ওভারে কোন রানই নেননি দুজন। এরপর মুশফিক চার মেরে নিজের রানের খাতা খোলেন। খানিক পরেই রানের দেখা পান দিপুও। অভিজ্ঞ আর তারুণ্যের এই সমন্বয়ে বাংলাদেশ কিছুটা হলেও প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *