বিপিএলে কোন দলের কোচ কে?

দরজায় কড়া নাড়ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের দশম আসর। অন্যান্য আসরের তুলনায় এবারের বিপিএলে আয়োজন এবং জাঁকজমক কিছুটা কম। বিপিএলের এই সময়েই মাঠে চলছে অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এসএ টুয়েন্টি। বিপিএলের মাঝেই শুরু হবে আরও কিছু লিগ। সবমিলিয়ে খেলোয়াড় আর কোচের দিক থেকে সংকট নিয়েই শুরু হচ্ছে এবারের বিপিএল।

খেলোয়াড় তো বটেই। কোচের দিক থেকেও এবারের বিপিএলে বিদেশীদের সংখ্যা অনেকটা কম। সাত দলের মধ্যে কেবল বরিশালেই দেখা যাবে বিদেশী কোচ। সেই কোচও অবশ্য বাংলাদেশের ঘরের মানুষ। তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমদের দলে কোচ হিসেবে থাকছেন অভিজ্ঞ ডেভ হোয়াইটমোর। একসময় বাংলাদেশ ক্রিকেটের অবিচ্ছেদ্য অংশ ছিলেন তিনি। বিপিএলেও আগে দেখা গিয়েছে তাকে। এবারের বিপিএলে থাকবেন ফরচুন বরিশালের ডাগআউটে।

দেশি কোচদের মধ্যে বড় নাম মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। লম্বা সময় ধরে আছেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সঙ্গে। বিপিএলের ইতিহাসেও সফল কোচদের একজন সালাউদ্দিন। অভিজ্ঞ এই কোচের অধীনে খেলবেন বিশ্বক্রিকেটের একঝাক তারকা। লিটন দাস, মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ রিজওয়ান, সুনীল নারিন, আন্দ্রে রাসেলদের নিয়ে শিরোপা ধরে রাখার মিশনে নামবেন অভিজ্ঞ এই কোচ।

ঢাকার দল এবার খুব বেশি শক্তপোক্ত না। খোদ সমর্থকদের মাঝেই দল নিয়ে আছে আক্ষেপ। তবে কোচের নামটা দেখলে কিছুটা হলেও আশা জাগতে পারে তাদের। দুর্দান্ত ঢাকার কোচ হিসেবে থাকছেন খালেদ মাহমুদ সুজন। নেটে বা জাতীয় দলে ক্রিকেটারদের সঙ্গে লম্বা সময় পার করেছেন সুজন। তার উপর আস্থা রেখেই খেলতে নামবে রাজধানীর ফ্র্যাঞ্চাইজ।

আরো পড়ুন  অনেক সিদ্ধান্তের বিসিবি বোর্ড মিটিং কবে?

তারকায় ঠাসা দল রংপুরের কোচ দেশের ক্রিকেটের আরেক অভিজ্ঞ নাম সোহেল ইসলাম। নিকোলাস পুরান, বাবর আজম, মাথিশা পাথিরানা, ব্রেন্ডন কিং, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার সঙ্গে এই দলে আছেন সাকিব আল হাসান। সোহেল ইসলাম ঘরোয়া ক্রিকেটে পরিচিত মুখ। তার অধীনে কেমন ফল আসে। সেটাই দেখার বিষয়। যদিও ধারণা করা হচ্ছে, আরও একবার শিরোপার লক্ষ্যে চ্যালেঞ্জ জানাবে রংপুর।

বাকি ৩ দল চট্টগ্রাম, সিলেট এবং খুলনা আস্থা রেখেছে অপেক্ষাকৃত নবীন কোচদের উপরেই। চট্টগ্রামের চ্যালেঞ্জ সামাল দেবেন ঘরোয়া ক্রিকেটের কিংবদন্তী তুষার ইমরান। আগে সিলেটের ব্যাটিং কোচ থাকলেও, এবারই তার প্রথম হেডকোচের আসনে বসা।

সিলেটে রাজিন সালেহর অভিজ্ঞতাটাও নেহাত কম না। গতবার ফাইনাল খেলা দলটা অবশ্য ড্রেসিংরুমে নেতা হিসেবে মাশরাফি বিন মর্তুজাকে খুঁজবে আরও একবার। আর একেবারেই নবীন হিসেবে খুলনার ডাগআউট আসবেন তালহা জুবায়ের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *